ওয়াজ নিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ৬ সুপারিশ

ওয়াজের মঞ্চে যেন কোনো ধরনের সাম্প্রদায়িক ও উগ্রবাদী মতাদর্শের প্রচার ও প্রসার না হয়, সে বিষয়টি নজরে আনতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ৬টি সুপারিশ দিয়েছে। সুপারিশ বাস্তবায়নে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে এরইমধ্যে ইসলামিক ফাউন্ডেশনকে নির্দেশ দিয়ে চিঠিও দিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

ওয়াজের মঞ্চে নানা ধরণের অপ্রাসঙ্গিক বিষয় নিয়ে আলোচনার বিষয়টি উঠে এসেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাম্প্রতিক একটি প্রতিবেদনে। এতে সুনির্দিষ্ট ১৫ জন বক্তার বিরুদ্ধে ধর্মীয় বিদ্বেষ ও উগ্র মতবাদ ছড়ানো, নারীদের অবমাননা ও দেশীয় সংস্কৃতি বিরোধী বক্তব্য দেয়ার অভিযোগ আনা হয়। পাশাপাশি ৬টি সুপারিশ করা হয়।

এগুলোর মধ্যে রয়েছে- বক্তারা যাতে বাস্তবধর্মী ও ইসলামের মূল আদর্শের সঙ্গে সংহতিপূর্ণ বক্তব্য দেন তার জন্য প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা। ওয়াজের বক্তাদের আয় থেকে রাজস্ব আদায়, দাওরায়ে হাদিসের ডিগ্রি আছে এমন উচ্চ শিক্ষিতদের বক্তা হিসেবে নিবন্ধন দেয়া, ওয়াজে কোনো বক্তা ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ালে তাকে সতর্ক করা।

সুপারিশগুলো বাস্তবায়ন করতে এরই মধ্যে ইসলামিক ফাউন্ডেশন, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড ও সব বিভাগীয় কমিশনারের কাছে চিঠি পাঠিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক দেশের বাইরে থাকায় এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তিনি ফিরলেই ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে ইসলামি ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

512 thoughts on “ওয়াজ নিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ৬ সুপারিশ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: