ভারতের নির্বাচন ঘিরে উত্তাপ, দলগুলোর পাল্টাপাল্টি অভিযোগ

ভারতের লোকসভা নির্বাচনের প্রথম দফার ভোটের বাকি মাত্র চারদিন। ক্ষমতাসীন জোট বিজেপি ও বিরোধী দলগুলো পরস্পরের বিরুদ্ধে অভিযোগ ও পাল্টা অভিযোগ অব্যাহত রাখায় উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে ভোটের হাওয়া। এদিকে, বিজেপিকে ভোট না দেয়ার জন্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সাধারণ ভোটারদের আহ্বান জানাচ্ছেন ভারতের সংস্কৃতি ও বিনোদন জগতের বিশিষ্টজনেরা।

সুদিনের স্বপ্ন দেখিয়ে গত পাঁচ বছর আগে দিল্লির মসনদে বসেছিলেন নরেন্দ্র মোদি। এবার তার কৌশল হিন্দুত্ব ও ভারতীয় জাতীয়তাবাদ চাঙ্গা করে ভোটে জেতা। 

তবে কংগ্রেসের সভাপতি রাহুল গান্ধীর তোপের মুখে কিছুটা বেকায়দায় মোদি। তাতে ঘি ঢেলেছেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগি আদিত্যনাথের একটি মন্তব্য।  ভারতের সেনাবাহিনীকে তিনি ‘মোদির সেনা’ বলায় সমালোচনার মুখে পড়েছে তার দল বিজেপি।   

নির্বাচন কমিশন এ ব্যাপারে যোগীকে সতর্কও করেছে।

এছাড়া, দলের টিকেট না পাওয়া বিজেপির প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য লালকৃষ্ণ আদভানির একটি মন্তব্যে রীতিমত বিব্রত বিজেপি। মোদির বিরুদ্ধে বাড়তি রসদ পেল বিরোধী শিবির- এমনটাই মনে করেন বিশ্লেষকরা।

এদিকে, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বিজেপিকে ভোট না দেয়ার আহ্বান জানিয়ে ‘সেভ ডেমোক্রেসি’ নামে গণআবেদন প্রকাশ করেছেন ভারতের ছয় শতাধিক থিয়েটার আর্টিস্ট ও পরিচালক। এরআগে, ঘৃণার রাজনীতির বিরুদ্ধে জনগণকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়ে খোলা চিঠি দিয়েছেন অরুন্ধতীসহ ভারতের ২৩৩ জন লেখক। 

এদিকে, সম্প্রচারের তিন-চার দিনের মধ্যেই বিতর্কের তুঙ্গে মোদির নাম ও ছবি সংবলিত ‘নমো টিভি’। আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে তথ্যমন্ত্রণালয়ের কাছে এ ব্যাপারে ব্যাখ্যা চেয়েছে নির্বাচন কমিশন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: